ভালো সংগ্রহ সফরকারীদের

তৃতীয় দিন শেষে ভালো সংগ্রহ সফরকারীদের

শনিবার সকালে ৫০ রানের লিড নেওয়ার আশায় ৫ উইকেটে ৭২ রান পিছিয়ে থেকে মাঠে নেমেছিল টাইগাররা। কিন্তু একেরপর এক উইকেট পতন হতে থাকলে ২৪৮ রানেই থেমে যায় স্বাগতিকদের ইনিংস।

লাঞ্চের আগে ৪৫ রানের লিডের পুঁজি নিয়ে মাঠে নামে সফরকারীরা। দ্বিতীয় ইনিংসে অধিনায়ক কুক ও বেন ডাকেটের উদ্বোধনী জুটিতে শুভ সুচনাই করেছিল ইংল্যান্ড। উদ্বোধনী জুটি জলে উঠার আগেই থামিয়ে দেন বাংলাদেশের প্রথম ইনিংসের সফল বলার মিরাজ। ১২ রানেই কুককে সাজঘরের পথ দেখান তিনি এবং পরের ওভারে সাকিবের বলে আউট হয়ে ১ রানেই সাঁজ ঘরের পথ দেখেন জো রুট এবং লাঞ্চের আগে ১৫ রানে বেন ডাকেটকেও ফিরিয়ে দেন সাকিব।

লাঞ্চের পরেও সাফল্য ধরে রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করে স্বাগতিকরা। একটু দেরি হলেও আবারো বাংলাদেশের পক্ষে সাফল্য আসে। দলিও ৪৬ রানে তাইজুলের বলে গ্যারি ব্যালেন্স এবং দলিও ৬২ রানে সাকিবের বলে মঈনও সাঁজ ঘরের পথ ধরলে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পড়ে যায় ইংল্যান্ড।

এরপর স্টোকস ও জনি বেয়ারস্টোর নিয়ন্ত্রিত ব্যাটিংয়ে ভালো সংগ্রহের দিকে যেতে থেকে ইংল্যান্ড। অবশেষে পেসার রাব্বির বলে বেয়ারস্টোক ৪৭ রানে বোল্ড হলে কিছুটা সস্থি চলে আসে বাংলাদেশ শিবিরে। তাদের জুটিতে আসে মূল্যবান ১২৭ রান।

পরবর্তীতে ৮৫ রানে স্টোকসকে এবং রশিদকে ৯ রাণে আউট করে টেস্ট ক্যারিয়ারে ১৫তম বারের মত পাঁচ উইকেট শিকারের কীর্তি দেখিয়ে তৃতীয় দিনে ইংল্যান্ডকে অলআউট করে দেয়ার সম্ভবনা তৈরি করে সাকিব।

শেষ পর্যন্ত ক্রিস ওকস ও স্টুয়ার্ট ব্রডের বোঝাপড়া ব্যাটিংয়ে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৭৩ রানের লিড দিয়ে তৃতীয় দিন শেষ করে ইংল্যান্ড।

ওকস ১১ এবং ব্রড ১০ রানে অপরাজিত আছেন।

সাকিব ৭৯ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়েছেন।

Check Also

নিউজিল্যান্ডে মাশরাফিরা

ভালো খেলার প্রত্যাশায় নিউজিল্যান্ডে মাশরাফিরা

সিডনিতে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে জয় পেলেও দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে হেরে গিয়ে ছিল বাংলাদেশ। অপরদিকে গত …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

3 × 5 =