বৃহস্পতিবার , ডিসেম্বর 22 2016
মোহাম্মদ আশারাফুল

প্রথম ফিটনেস পরীক্ষাতেই সফলতা পেল আশরাফুল

সাড়ে তিন বছর পর আবারো ফিটনেস পরীক্ষা দিলেল এক সময়কার বাংলাদেশের ক্রিকেট রত্ন, সবচেয়ে কনিস্ট টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান মোহাম্মদ আশরাফুল। পরীক্ষাতে সফলতাও পেয়েছেন চোখে লাগার মত।

মঙ্গলবার ফিটনেস পরীক্ষা দেওয়ার জন্য মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের অ্যাকাডেমি মাঠে ৮ চক্কর দিয়েছেন তিনি। সাড়ে ৩ বছরের বিরতিতেও পরীক্ষা দিয়ে নজর কেরেছেন  ট্রেনার কোরে বকিংয়ের। বকিং বলেন,

চলমান ভালো ক্রিকেটারদের চেও অনেক ভালো টাইমিংয়ে দৌড়িয়েছে সে। এখনও ভালো ফিটনেসে আছে সে। সে চক্কর দিতে সময় নিয়েছে ৯ মিনিট। আর সবছেয়ে কম সময় লাগে মেহেদি হাসান মিরাজের। মেহেদির সময় লাগে মাত্র ৬ মিনিট। তিন বছর পরেও ভালো ফিটনেসে আছে সে। এভাবে করতে পারলে ও খুব দ্রুত একটা ভালো অবস্থানে চলে আসবে। সব মিলিয়ে ফলাফল অনেক ভালো।

অপরদিকে আশরাফুল বলেন,

আমি এই সাড়ে তিন বছরে কঠোর পরিশ্রম করেছি। এই সময়টাতে বিসিবির তত্ত্বাবধানে কোন অনুশীলনের সুযোগ পাইনি আমি। দুই সপ্তাহ ধরে আমি এখানে নিয়মিত। আজ সুযোগ পেলাম, তাই একটা পরীক্ষা দিয়ে দিলাম। আল্লাহর রহমতে ভালোই হয়েছে। এর মধ্যে আমি যেখানেই সুযোগ পেয়েছি, সেখানেই খেলেছি। উল্লেখযোগ্য হিসেবে বলা যায় ইংল্যান্ড ও আমিরাতে খেলা। ১৩ বছর ধরে যে সুবিধা পেয়েছিলাম, তা আবার পাচ্ছি। এটা ভালো লাগছে। আশা করি সফলতা আসবে।

আশরাফুলের বর্তমান স্বপ্ন একটাই, আবারো জাতীয় দলে ফিরে নিজেকে নতুন রুপে হাজির করা। তিনি বলেন,

আমি খেলাটাকে সত্যি খুব ভালো বাসি। দীর্ঘ দিন ক্রিকেট থেকে বাহিরে ছিলাম। যে কারনে খেলা থেকে বাহিরে ছিলাম, জানতাম তা স্বল্প সময়ের মধ্যে সমাধান হবে না। আমি যেন আবার ক্রিকেট অঙ্গনে ফিরে আসতে পারি এবং ফিরে এসে যেন মনে না হয়, আমি খেলা থেকে বাহিরে ছিলাম।

আমাকে তিন সপ্তাহের একটা গাইড লাইন দেওয়া হয়েছে। কেও সাহায্য করুক আর না করুক আমি চেষ্টা করবো একা একা করার। তিন সপ্তাহ পরে আবারো পরীক্ষা দিব। তারা পর্যবেক্ষণ করবে, আমি কতটুকু উন্নতি করতে পেরেছি।

লক্ষ এবং চেষ্টা থাকলে সকলেই সফলতা পায়। আর এটা আশারাফুলের ক্ষেত্রেই বেতিক্রম হবার কথা নয়। যদিও পথটা অনেক কঠিন। তার পরেও আশরাফুলের ঝুড়িতে সফলতা আসবে। এটাই প্রত্যাশা এখন, আশরাফুলের লাখো সমর্থকের।

 

Check Also

চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ

রোনালদোর ভেলায় চড়ে ক্লাব বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ

খেলার শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলেছে অনভিজ্ঞ ক্লাব কাশিমা অ্যান্টলার্স। তবে শেষ পর্যন্ত অভিজ্ঞতার কাছে পরাজয় …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eighteen + six =